সরকারি ল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা কি? ‘ল’ পড়তে জানতে হবে

প্রিয় পাঠকগণ সরকারি ল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা এবং নানান ধরনের নিয়ম সম্পর্কে আপনারা অনেকেই গুগলের মাধ্যমে সার্চ করে থাকেন। আজকের এই পোস্টে আমরা আপনাদেরকে সরকারি ল কলেজে ভর্তির নিয়ম যোগ্যতা এবং ল কলেজে পড়লে আপনার ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে সেই সকল বিষয়ে আলোচনা করব।

আশা করছি আজকের এই শিক্ষামূলক আর্টিকেলটি খুবই ভালো লাগবে। এবং আর্টিকেলের তথ্যগুলো আপনাদের গুরুত্বপূর্ণ কাজে লাগবে।

বাংলাদেশের বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় বিভাগ হচ্ছে আইন বিভাগ। আমরা যাকে “ল বিভাগ” বলে থাকি। ল বিভাগে পড়াশোনা করা খুবই গর্বের এবং সম্মানজনক।

সরকারি ল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা কি?

সরকারি ল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা কি

আপনাকে সরকারি ল কলেজে পড়তে হলে আপনার জিপিএ সর্বনিন্ম ৭.০০ (GPA 7.00+) হতে হবে এবং বেসরকারিতে যদি পড়তে চান তাহলে কোন ধরনের জিপিএ প্রয়োজন হবে না। যে কেউ বেসরকারিতে খুব সহজেই ভর্তি হয়ে যেতে পারে।

আপনি বেসরকারি কিংবা সরকারি যে ধরনের ল কলেজেই পড়েন না কেন সকল ল কলেজ ঢাবির ( ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ) আওতাভুক্ত থাকবে।

অর্থাৎ আপনার এবং হাই কোয়ালিটি প্রোফাইল সম্পন্ন ল স্টুডেন্টের মান একই থাকবে। যদি আপনি সুপ্রিম কোর্ট কিংবা জজ কোর্ট অ্যাডভোকেট কিংবা সেখানে প্র্যাকটিস শিখতে চান, তবে সেই ক্ষেত্রে আপনার বার কাউন্সিল পরীক্ষা দিতে হবে। 

পরীক্ষাটি মূলত খুবই কঠিন, এক কথায় আপনারা বলতে পারেন কিছুটা বিসিএস পরীক্ষার মতো।  কিন্তু আপনি যদি নিজের ফিউচার এর কথা চিন্তা করেন তাহলে আপনার এ পরীক্ষায় পাশ করলেই ভাগ্য খুলে যাবে। 

যদি আপনি এই প্রফেশনে টিকে থাকতে পারেন তাহলে ক্যারিয়ার হিসেবে এ প্রফেশন টি বেস্ট। আমাদের এই বাংলাদেশের সর্বপ্রথম আইন বিষয়ে চালু করা হয়েছিল ১৯২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

বর্তমানে অনেক সরকারি এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ল’কলেজে আইন বিষয়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে। 

ল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা

আপনি ল নিয়ে পড়ার জন্য যেকোনো বিভাগ থেকে এইচএসসি বা উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের চার বছর মেয়াদি এলএলবি পড়ার সুযোগ রয়েছে। 

আইন বিভাগ সকল শিক্ষার্থীদের পছন্দের তালিকা এক নম্বরে থাকে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আইন পড়তে আপনাকে কঠিন প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে তবে আসতে হবে। 

ভর্তি পরীক্ষার মেধা তালিকা অনুযায়ী প্রথমদিকে শিক্ষার্থীরা এ বিভাগে পড়ার সুযোগ পান। 

এছাড়াও আপনি চার বছর মেয়াদি এলএলবি কোর্স না করেও আইন পেশায় আসতে পারেন। 

তবে এর জন্য আপনাকে কোন বিশ্ববিদ্যালয় অথবা কলেজ থেকে অনার্স বা ডিগ্রী পাস করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে যেকোনো একটি ল কলেজ থেকে দুবছর অথবা তিন বছর মেয়াদী এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করতে হবে।

কোথায় ভর্তি হবেন ল পড়তে?

বর্তমানে বাংলাদেশের প্রায় সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আইন বিষয়ে পড়ানো হয়। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে-

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,
  • জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়,
  • রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়,
  • ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়,
  • চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়,
  • জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়,
  • খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়,
  • কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়,
  • জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়,
  • গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
  • ও বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি।

এছাড়াও আপনারা পটুয়াখালীসহ কয়েকটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে আইন বিভাগ পড়ানো হচ্ছে। 

কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন এবং ভূমি আইন দুটো আলাদা বিষয়ের উপর স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভের সুযোগ প্রদান করছে।

যেসব বিষয়ে পড়বেন

এবার আসা যাক আপনারা যে বিষয়টি নিয়ে পড়বেন। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনটি বিষয়ের যেকোন একটিতে এলএলবি ডিগ্রি দেয়া হয়ে থাকে। 

বিষয় গুলো হল-  আইন,  আইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা,  এবং আল ফিকহ অ্যান্ড লিগ্যাল স্টাডিজ।

উপরে উল্লেখিত আইন বিভাগ সকল সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানো হলেও আইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা বিষয়টি শুধুমাত্র রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানো হয়ে থাকে।

এছাড়াও আল ফিকহ অ্যান্ড লিগ্যাল স্টাডিজ নামে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একটি আলাদা বিভাগ রয়েছে।    

প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে শুধুমাত্র আইন বিষয়ে পড়ানো হয়।

ল পড়তে খরচ কেমন?  

আইন বিভাগে পড়ার জন্য দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে তেমন কোন ধরনের খরচ হয়না। 

সবমিলিয়ে সম্পূর্ণ কোর্স শেষ করতে মাত্র 50 থেকে 80 হাজার টাকা খরচ হতে পারে।  তবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ল কলেজ থেকে এলএলবি পড়তে হলে 20 থেকে 25 হাজার টাকার প্রয়োজন হয়।

বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আইনের জন্য এলএলবি অনার্স কোর্স চালু রয়েছে। 

তবে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে খরচ তুলনামূলক ভাবে বেশি। 

আপনি যদি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়তে চান তাহলে সেখানে খরচ পড়তে পারে তিন থেকে সাত লক্ষ টাকা। 

তবে সে খরচটি আপনার প্রতিষ্ঠানভেদে এবং প্রতিষ্ঠানিক সুবিধা ভেদে হয়ে থাকে।

ল পড়ে চাকরির সুযোগ 

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশে আইন বিভাগ থেকে চাকরির ব্যাপক চাহিদা আছে। 

একজন শিক্ষার্থী যখন আইন পড়েন তখন তার স্বপ্ন থাকে বিচার বিভাগের একটি অংশ হয়ে কাজ করা।

দীর্ঘ এ পড়াশোনা শেষ করার পর আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা জজ এবং অ্যাডভোকেট হতে পারেন। 

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এসকল পেশাগুলো খুবই সম্মানজনক পেশা। এছাড়াও বিভিন্ন ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আইন কর্মকর্তা হিসেবে তাদের কাজ করার নানান সুযোগ তৈরি হয়।

এছাড়াও আইন পাস কৃত ছাত্র-ছাত্রীরা বিসিএস ও অন্যান্য যেকোনো নন ক্যাডারের চাকরি ব্যাংক, স্বশাসিত ও বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানে চাকরির সুযোগ পেয়ে থাকেন।

বর্তমানে এই সময়ে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্থা সহ বহুজাতিক নানান প্রতিষ্ঠানে আইন বিষয়ে গ্রাজুয়েট শিক্ষার্থীদের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। 

এছাড়াও সরকারি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন কলেজ থেকে আইন বিভাগে গ্রাজুয়েট শিক্ষার্থীদের শিক্ষকতারও একটি বিশাল সুযোগ রয়েছে।

শুধু আইনেস না গত বার-কাউন্সিলের অধীনে সেসকল শিক্ষার্থীরা এডভোকেটশীপ পরীক্ষার মাধ্যমে নিম্ন আদালত এবং বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার সুযোগ রয়েছে।

উচ্চশিক্ষার সুযোগ

আপনি যদি আইন বিভাগ নিয়ে পড়তে চান এবং আইনের ওপর গ্রাজুয়েট করার পর আপনি আইন বিভাগ নিয়ে উচ্চতর শিক্ষার জন্য আরও পড়াশুনা করতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে দেশে এবং বিদেশে আইন বিভাগের একটি বড় সুযোগ রয়েছে। 

বর্তমানে বাংলাদেশের অনেকগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন এর ওপর এম.ফিল ও পি.এইচডি ডিগ্রী গ্রহণ করা সম্ভব।

বিদেশে যে সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে সেখানে আইনে শিক্ষার্থীরা স্কলারশিপ নিয়ে পড়াশোনার জন্য যেতে পারেন। 

তাছাড়া বার-অ্যাট-ল’ সম্পন্ন করে ব্যারিস্টার হওয়ার সুযোগ আছে। সবকিছু মিলিয়ে নিজের ক্যারিয়ার গঠন করার জন্য আইন বিভাগ নিয়ে পড়াশোনা করতে পারেন।

সরকারি ল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা কি?

বর্তমানে সরকারি ল কলেজে পড়তে হলে আপনার জিপিএ সর্বনিন্ম ৭.০০ (GPA 7.00+) হতে হবে এবং বেসরকারিতে যদি পড়তে কোন ধরনের জিপিএ সিমা নির্ধারিত করা নেই, তবে সর্বনিন্ম জিপিএ হিসাব করেই ছাত্র নেয়া হয়।

উপসংহার 

প্রিয় পাঠকগণ আজকের এই আর্টিকেলটি সরকারি ল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা সম্পর্কে এবং আইন বিভাগে পড়াশোনা করলে আপনার ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে সে সকল বিষয়গুলো আপনাদের সামনে উল্লেখ করা হয়েছে। 

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভাল লেগেছে। আপনাদের যদি আজকের আর্টিকেল সম্পর্কিত কোনো ধরনের প্রশ্ন মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন। 

আমরা সব সময় আপনাদের কমেন্টের উত্তর দেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছি। আমাদের ওয়েবসাইটে আরো নানান ধরনের তথ্যবহুল আর্টিকেল রয়েছে আপনারা চাইলে সেগুলো পড়ে আসতে পারেন।

এবং আমাদের ওয়েবসাইট সম্পর্কিত সকল আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি ফলো করুন।

Leave a Comment