IMEI নাম্বার কি? IMEI নাম্বার কিভাবে বের করে

IMEI নাম্বার কি এ সম্পর্কে জানতে অনেকেই গুগল সার্চ করে থাকেন। বর্তমান যুগে আমরা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অনেক ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করে থাকি। প্রতিটি ইলেকট্রনিক যন্ত্রের একটি আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার থাকে।

তবে বিশেষ করে মোবাইল, ল্যাপটপ, কম্পিউটার ট্যাবলেট এই জাতীয় ডিভাইস গুলোর আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার খুব বেশি প্রয়োজন পড়ে। মোবাইল ব্যবহারকারী যখন একটি সিম ব্যবহার করে তখন প্রতিটি মোবাইলের সিম নাম্বার টি ভিন্ন হয়ে থাকে। একটি মোবাইলের সিম নম্বরের মত প্রতিটি মোবাইলের একটি আইএমইআই নম্বরও থাকে, এটি মোবাইল শনাক্তকরণে ব্যবহার হয়ে থাকে। এই মোবাইল শনাক্তকরণ নাম্বারকে IMEI নাম্বার বলা হয়। 

এই IMEI নম্বরটি প্রতিটি মোবাইলের জন্য একটি অনন্য কোড হিসাবে কাজ করে। এই আইএমইআই নম্বরের অধীনে, যে কেউ তার হারিয়ে যাওয়া বা চুরি হওয়া মোবাইলটি ট্রেস করতে পারে। এক কথায় বললে একটি মোবাইলের আইডেন্টিফিকেশন এর জন্য একটি আইএমইআই নম্বরের গুরুত্ব অনেক।

মূলত আজকের এই পোস্টে আমরা IMEI নাম্বার কি? IMEI নাম্বার কিভাবে বের করেতে হয় এ সম্পর্কে বিস্তারিত আপনাদের জানাবো। 

IMEI নাম্বার কি?

যখনি আপনি একটি মোবাইল ফোন ক্রয় করবেন, তখন আপনার বিলে একটি স্টিকার লাগানো হবে যা মোবাইলের IMEI নম্বর। মনে রাখবেন প্রতিটি মোবাইলের জন্য একটি ইউনিক নম্বর এটি। প্রতিটি মোবাইলেও লেখা থাকে আইমি নাম্বার। আপনি যেমন প্রতিটি মোবাইলের ব্যাটারিতে লেখা দেখতে পাবেন, তেমনি যে স্থানে মোবাইলের ব্যাটারি রাখা হয় তার নিচে আইমি (IMEI) নাম্বার দেখতে পাবেন। 

IMEI এর প্রধান কাজ কি?

আশা করি ইতিমধ্যেই আপনি জানেন পেরেছেন যে প্রতিটি মোবাইলের একটি IMEI নম্বর থাকে।

এমতাবস্থায় একটি মোবাইল কোন কারনে আপনার কাছ থেকে দূরে চলে গেলে অর্থাৎ যদি মোবাইলটি হারিয়ে যায়। সেক্ষেত্রে আপনার মোবাইলের আইএমইআই নম্বরের কারণেই আপনার মোবাইল ফেরত পাওয়া সম্ভব।

যখন আপনি পুলিশের কাছে মোবাইল সম্পর্কিত কমপ্লেন করবেন, তখন IMEI নাম্বারের ভিত্তিতেই আপনার মোবাইল ট্র্যাক করে পুলিশ। এটি এমন একটি কোড যা প্রতিটি মোবাইলে ভিন্ন ভিন্ন বা ইউনিক হয়ে থাকে।

পুলিশের অনন্য নজির, দেখল বাংলাদেশের জনগণ

এই কোডটি মূলত কোডটি যেকোন মোবাইল সনাক্ত করতে ব্যবহার করা হয়। এই কোডটি যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি অনন্য।

IMEI এর পূর্ণ নাম কি?

প্রতিটি মোবাইলে ব্যবহৃত এই অনন্য কোড IMEI এর পুরো নাম হল International Mobile Equipment Identity, কথাটি বাংলায় বাংলাতে বলতে হচ্ছে “ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি” বলা হয়।

IMEI নম্বর কত সংখ্যার হয়? 

প্রিয় পাঠক IMEI নম্বর একটি ১৪ সংখ্যার কোড যা সম্পূর্ণরূপে সংখ্যা বিন্যাসে গঠিত হয়ে থাকে। উদাহরণ স্বরূপ IMEI নম্বর হচ্ছে 34521456885478 এর মতো কিছু নম্বর দ্বারা গঠিত এবং এটিতে একটি দুই অংকের চেকও যোগ করা হয়, যার পরে মোবাইলের IMEI নাম্বারটি 16 সংখ্যায় পরিণত হয়। 3452145688547890 এরকম কিছু।

মোবাইল চুরি হলে IMEI নাম্বার দিয়ে খুঁজে পাওয়ার উপায়

যদি কোন কারণে আপনার মোবাইল চুরি হয়ে যায়, সেক্ষেত্রে, আপনি পুলিশের কাছে অভিযোগ করবেন নিশ্চয়ই, এক্ষেত্রে পুলিশ আপনার কাছে মোবাইলের আইএমইআই নম্বর জানতে চায় এবং তারপরে তারা আপনার মোবাইলটি ট্র্যাক করে এবং আপনার মোবাইল ফিরিয়ে আনতে চেষ্টা শুরু করে দেয়। 

কি করলে জীবনে সুখী হওয়া যায়? আপনি জানেন কি

সরকার কি আমার মোবাইল ট্র্যাক করতে পারে? 

আপনি যদি মনে মনে চিন্তা করেন যে সরকার কি আপনার মোবাইল ট্র্যাক করতে পারে? তাহলে আপনাকে বলছি আপনার জানা উচিত যে বাংলাদেশ সরকার সহ বিশ্বের যে কোন দেশের সরকারি সব সময় তার দেশে চলমান সকল মোবাইল ফোনের ডাটা রেকর্ড রাখে। যদি কোন সময় আপনার মোবাইল ট্র্যাক করার প্রয়োজন হয় তাহলে সরকার আপনারা IMEI নাম্বার দিয়ে মোবাইল ট্র্যাক করতে পারে। 

যদিও সরকার আপনার ব্যক্তিগত তথ্য গুলো দেখতে পারেনা। তবে এক্ষেত্রে আপনি যতক্ষণ পর্যন্ত না কোন দেশ বিরোধী কর্মকান্ড বা কোন অপরাধমূলক কাজে জড়িত রয়েছেন এমন সন্দেহ না হয় ততক্ষণ সরকার আপনার মোবাইল ফোনকে ট্র্যাক করে না। 

তবে এটাও জেনে রাখুন যে সরকার চাইলে সরাসরি আপনার মোবাইল ফোনটিকে ট্র্যাক করতে পারে না। 

আপনাকে ট্র্যাক করতে হলে আপনি যে অপারেটরের সিম ব্যবহার করছেন ঐ অপারেটরের কাছ থেকে আপনার তথ্য সংগ্রহ করতে হয়। 

কেননা টেলিকম অপারেটর এর কাছে আপনার ক্রয় করা সিমের সকল তথ্য দেয়া থাকে। সিম নাম্বার ও IMEI নম্বর উভয়ের সমন্বয়ে সরকার যে কোন ব্যক্তিকে কোন জায়গায় রয়েছেন ও তার গতিবিধি ট্র্যাক করতে পারে। 

IMEI নাম্বার কিভাবে বের করে?

IMEI নাম্বার কি IMEI নাম্বার কিভাবে বের করে
IMEI নাম্বার কি? IMEI নাম্বার কিভাবে বের করে

আপনি যদি মনে করেন যে আপনার মোবাইলের আইমি নাম্বারটি কত আপনার জানা দরকার, বা কিভাবে আপনি আপনার মোবাইলের আইমি নাম্বার টি বের করবেন এই সম্পর্কে আমরা আপনাদের জানাই। 

তবে এক্ষেত্রে নিজ মোবাইলের IMEI নাম্বার বের করতে বের করতে আপনি দুটি পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন। 

মহাসাগর কয়টি ও কি কি?

একটি হচ্ছে আপনি যখন মোবাইল ক্রয় করেছিলেন তখন আপনাকে মোবাইলের বক্স এবং ক্যাশ মেমো দেয়া হয়েছে। সেই ক্যাশমেমোতে আইএমইআই নাম্বার এর একটি স্টিকার রয়েছে এবং মোবাইলের বক্সেও আইমি নাম্বার রয়েছে।

অন্য আরেকটি উপায় হচ্ছে আপনাকে আপনার মোবাইল থেকে *#06# এই নম্বর ডায়াল করতে হবে। তারপরে আপনি একটি অনস্ক্রিন বার্তা পাবেন, যেখানে আপনার ফোনের আইএমইআই নম্বর লেখা প্রদর্শিত হবে, যা আপনি নোট করে রাখতে পারেন ভবিষ্যৎ প্রয়োজনে। 

এছাড়াও আপনি আপনার মোবাইল ফোনের সেটিং থেকেও IMEI নাম্বারটি বের করতে পারেন। 

এজন্য প্রথমে আপনি আপনার মোবাইল ফোনের > সেটিং > ফোন সম্পর্কে > এখানে আপনি আপনার IMEI নম্বর দেখতে পাবেন।

IMEI নাম্বার কি?

IMEI নাম্বার হচ্ছে একটি মোবাইলের আইডেন্টিফিকেশন করার ইউনিক নম্বর। যা মোবাইল সনাক্তকরনে ব্যাবহার হয়ে থাকে।

উপসংহার,

আশা করি আপনি IMEI নাম্বার কি এবং আইমি IMEI নাম্বার কিভাবে বের করতে হয় এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। 

IMEI নাম্বার প্রতিটি মোবাইলের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ নম্বর। তাই আমিও আপনার মোবাইলের IMEI নম্বর সম্বলিত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র কখনো হারাবে না।

কেননা কোন কারণে আপনার মোবাইল ফোনটি আপনার কাছ থেকে লস্ট হলে বা হারিয়ে গেলে আপনাকে আইমি নাম্বার দিয়ে পুলিশ কমপ্লেন করতে হবে এভাবে সহজে আপনি আপনার মোবাইল ফোনটি খুঁজে পেতে পারবেন।

 প্রতিদিন নিত্য নতুন খবর ও সঠিক আপডেট জানতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট। এবং জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Leave a Comment